আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালুর দাবিতে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ে চিঠি

লকডাউনে স্বাস্থ্যবিধি মেনে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালু ও জনশক্তি খাতকে জরুরী সেবার মধ্যে অন্তর্ভুক্ত করতে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ে চিঠি দিয়েছে দুই রিক্রুটিং এজেন্সি সংগঠন।

সোমবার (১২ এপ্রিল) রিক্রুটিং ঐক্য পরিষদ ও রিক্রুটিং এজেন্সি ওয়েলফেয়ার এ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ-রাওব মন্ত্রণালয়ে পাঠানো চিঠিতে লকডাউনে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চলাচলের উপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের আহবান জানায়।

এতে বলা হয়, লকডাউনে বেবিচক কর্তৃক ঘোষিত আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চলাচল বন্ধ করার সিদ্ধান্ত আত্মঘাতী যা এই সেক্টরকে ধ্বংস করবে। এক্ষেত্রে লকডাউনে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালু রাখা ও জনশক্তি খাতকে জরুরী সেবায় অন্তর্ভুক্ত করার দাবি জানানো হয়।বিদেশে কর্মী প্রেরণের ক্ষেত্রে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বিদেশগামীদের জন্য কিছু পরামর্শের কথা চিঠিতে তুলে ধরা হয়েছে।

সেখানে বলা হয়েছে, বিদেশগামী যাত্রীরা একত্রিত হয়ে বিমানবন্দরে আসবে না, সেক্ষেত্রে তারা ব্যক্তিগত গাড়িতে করে বিমানবন্দরে এসে পাসপোর্ট, টিকিট ও স্মার্ট কার্ড দেখিয়ে বিদেশ গমন করবে তাই তাদের মাধ্যমে করোনা ভাইরাস সংক্রমনের ঝুঁকি নেই। ফলে তাদের এই লকডাউনের আওতামুক্ত রাখা যায়।

এছাড়া ফ্লাইট বন্ধের বিষয়টি যখন কর্মী গ্রহণকারী দেশগুলো জানবে তখন তাঁরা ঝুঁকির কথা চিন্তা করে কর্মী গ্রহণ বন্ধ করে দিতে পারে। এমনকি পরবর্তী সময়ে দেশ থেকে ফ্লাইট চালু হলেও সংশ্লিষ্ট দেশগুলো কর্মী নিতে অস্বীকৃতি জানাতে পারে। তাই কর্মী প্রেরণকারী এই এজেন্সিগুলো চিঠিতে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালুর রাখার দাবি জানিয়েছেন।

এদিকে রিক্রুটিং এজেন্সির চিঠি দেওয়ায় প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ তাদের আশ্বস্ত করেছেন। মন্ত্রী আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চালু রাখার জন্য তদবির করবেন বলে জানিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *